ফের শুরু হতে চলেছে উত্তরকাশী টানেলের কাজ, অনুমতি মন্ত্রকের

দেশ

উত্তরকাশী র সিলকিয়ারা-বারকোট টানেলে আটকে পড়া শ্রমিকদের বেদনাদায়ক উদ্ধারের কথা কেউ ভোলেনি। এবার উত্তরকাশী র এই টানেল প্রকল্পের কাজ শুরু হতে চলেছে। প্রায় দুই মাস পর এ কাজ শুরু হতে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। ২০২৩ সালের নভেম্বরে, ধসের কারণে এখানে ৪১  জন শ্রমিক আটকা পড়েছিলেন। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়ে এ প্রকল্পের কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। সরকারি সূত্রে এ খবর জানা গেছে। ১২ নভেম্বর সিল্কিয়ারা টানেল ধসে পড়ে। সে সময় ওই টানেলে বিভিন্ন রাজ্যের ৪১ জন শ্রমিক কাজ করছিলেন। তারা সবাই আটকে গেল। উদ্ধার কাজ শুরু হয়।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

এদিকে কাজ শুরুর কথা জানান এই প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক (এনএইচআইডিসিএল) দীপক পাতিল। তিনি বলেন, “মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী, আমরা প্রাথমিক পর্যায়ে টানেলের দুই পাশে রেড জোন করেছি। সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এবং কিছু কাজ ২-৩ সপ্তাহের মধ্যে শেষ হবে। তবে টানেল ধসে শ্রমিকরা টানা ১৭ দিন আটকা পড়েছিল। বিভিন্নভাবে তাদের উদ্ধারের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। তারপর আমেরিকান ‘অগার মেশিন’-এর উপর নির্ভর করা হয়। এটি একটি খননকারী। এই যন্ত্রটি ধ্বংসস্তূপের মধ্য দিয়ে কাটছিল। এবং ৯০০  মিলিমিটার ব্যাসের পাইপ পিছনে চলছিল। যার মাধ্যমে আটকে পড়া শ্রমিকদের বের করার চেষ্টা করা হয়। তবে এটি শেষ রক্ষা ছিল না।

অন্যদিকে, আটকে পড়া শ্রমিকদের থেকে ১০-১২ মিটার দূরে মেশিনটি ভেঙে পড়ে। উদ্ধার কাজে কোনো বাধা হয়নি। যান্ত্রিক সমস্যার কারণে বারবার উদ্ধার কাজ বন্ধ হয়ে যায়। উদ্বেগ নিয়ে অপেক্ষা করছেন শ্রমিকদের বাড়ির সদস্যরা। আমেরিকার তৈরি এক্সকাভেটর ধ্বংসস্তূপের ভিতরে লোহার কাঠামোতে বিধ্বস্ত হয়।এরপর আটকে পড়া শ্রমিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তারা পাইপের মাধ্যমে কথা বলছিলেন। এটি খাদ্য, জল এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিস সরবরাহ করত। এরপর উদ্ধারকারী দল সেখানে প্রবেশ করে এবং হাতিয়ার ছাড়াই খনন শুরু করে। এই প্রক্রিয়াটিকে ‘র্যাট-হোল’ প্রক্রিয়া বা ‘র্যাট-হোল মাইনিং’ বলা হয়।

এছাড়াও, এই পদ্ধতিটি খনি থেকে কাঁচামাল বের করতে ব্যবহৃত হয়। যেখানেই কয়লা খনি আছে সেখানেই এই প্রক্রিয়াটি দেখা যায়। এই কাজে দক্ষ প্রতিনিধিরা ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে সরু গর্ত খুঁড়তে খনিতে নেমে গেল। ঠিক যেমন ইঁদুর বরফ করে। প্রথম ধাপে ‘ইঁদুরের গর্ত’-এর জন্য ১২ জন অভিজ্ঞ প্রতিনিধিকে ঘটনাস্থলে আনা হয়। তারা সুড়ঙ্গের ভিতরে পৌঁছে একটি প্রাচীর খনন শুরু করে। দ্বিতীয়টি ধ্বংসস্তূপ সংগ্রহ করে এবং তৃতীয়টি চাকাযুক্ত কার্টে লোড করে। গাড়িটি টানেলের ধ্বংসাবশেষ বহন করে। এভাবেই শেষ পর্যন্ত উদ্ধার কাজে সফলতা আসে।

স্বস্তিক বাংলা সংবাদ, সময়ের আগে সততার সাথে। দেশ ও পশ্চিমবঙ্গের প্রতিমুহূর্তের রাজনৈতিক, সামাজিক ও সংস্কৃতির দৈনিক খবর সম্পর্কে সম্পূর্ণ ওয়াকিবহাল থাকার জন্য ও আজকের সংবাদের জন্য স্বস্তিক বাংলা খবর, বাংলা ভাষায় বাংলা খবরের একমাত্র নির্ভরযোগ্য বাংলা সমাচারের মাধ্যম স্বস্তিক বাংলা নিউজ পোর্টাল, চোখ রাখুন স্বস্তিক বাংলার পর্দায় এবং সাবস্ক্রাইব করুন স্বস্তিক বাংলার ইউটিউব চ্যানেলটি এবং স্বস্তিক বাংলার ফেসবুক পেজটি কে লাইক শেয়ার ও ফলো করুন ।

Swastik Bangla News, somoyer age sototar sathe. To be fully aware of daily political, social and cultural news of the country and West Bengal and for today’s news Swastik Bangla Sangbad, the only reliable Bangla news medium of Bangla Khobor in Bengali language, keep an eye on Swastik Bangla News Portal, Swastik Bangla Screen and subscribe to Swastik Bangla YouTube Channel And like, share and follow Swastik Bangla’s Facebook page.

https://www.facebook.com/Swastik-Bangla-106535301726361

https://www.youtube.com/@SWASTIKBANGLANEWS/videos

https://www.instagram.com/swastikbangla/

https://www.swastikbangla.com

https://news.google.com/publications/CAAqBwgKMLCBzAsw4JzjAw?ceid=IN:en&oc=3&hl=en-IN&gl=IN

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *